Articles

ফেসবুক হাতছাড়া হয়েছে?

বাংলাদেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের বেশির ভাগেরই ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট রয়েছে। প্রতিদিনের যোগাযোগ আর তথ্য আদান-প্রদান সহজ করে দিচ্ছে বলেই ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ছে প্রতিনিয়ত। সঙ্গে বাড়ছে ফেসবুকের ওপর নির্ভরশীলতা। আবার ফেসবুক নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়া ব্যবহারকারীর সংখ্যাও কম নয়। ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তার প্রশ্ন থাকে বলে এই বিড়ম্বনা মাঝেমধ্যে ভয়াবহ আকার ধারণ করে।

অনেক ব্যবহারকারী আছেন যাঁরা নিজেদের নামের অ্যাকাউন্ট থেকে ফেসবুকে বন্ধু হওয়ার অনুরোধ পেয়েছেন। মানে সেই ব্যবহারকারীর নাম ও ছবি দিয়ে অন্য কেউ ভুয়া বা ফেক অ্যাকাউন্ট খুলে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছে। আর তারকাখ্যাতি পাওয়া ব্যবহারকারীদের নামে যে কতশত ফেক অ্যাকাউন্ট রয়েছে, তার হিসাব রাখতেও আলাদা হিসাবরক্ষক দরকার। ইদানীং অ্যাকাউন্ট হাতছাড়া হওয়াটা বড় সমস্যায় পরিণত হয়েছে। অনেকে আবার জানান, অ্যাকাউন্টে ঢুকতে লগ-ইন করতে পারছেন না। তবে লগ-ইন করতে না পারা মানেই যে অন্য কেউ সেই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করছে, এমন নয়। ‘ফেসবুক হ্যাক’ বর্তমান সময়ের একটি আতঙ্কের নাম।

ওপেন স্ট্রিট ম্যাপ (OpenStreetMap)

ওপেন স্ট্রিট ম্যাপ (OpenStreetMap) হলো একটি মুক্ত মানচিত্র। স্বেচ্ছাসেবকদের অবদানের ভিত্তিতে তৈরী হচ্ছে সমগ্র বিশ্বের এই মানচিত্রটি। শুধুমাত্র মানচিত্র তৈরীই নয় বরং সকলের ব্যবহার উপযোগী একটি তথ্য-উপাত্তের ভান্ডার তৈরীর লক্ষ্যে শুরু হয়েছিল এই প্রকল্পটি। প্রত্যেকেই যদি তার অবস্থানের চারিদিকে এবং তার পরিচিত স্থানগুলো মানচিত্রে যুক্ত করতে থাকে তবে এক সময় এটি এমন একটি মানচিত্র তৈরী হবে যেখানে পৃথিবীর সকল স্থানের সকল তথ্য উল্লেখ থাকবে।

ইনটেলের ৫০

অর্ধশতক আগে যাত্রা শুরু করে ইনটেল। উদ্দেশ্য ছিল উন্নত ভবিষ্যৎ তৈরি। আর সেই থেকেই নতুন নতুন ভাবনা আর সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে উদ্ভাবন করে চলেছে মাইক্রোপ্রসেসর নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। ১৯৬৮ সালের ১৮ জুলাই রবার্ট নয়েচ ও গর্ডন মুর ইনটেল প্রতিষ্ঠা করেন। দীর্ঘ এই সময়ে সহপ্রতিষ্ঠাতা নয়েচের একটি চ্যালেঞ্জ তাদের প্রেরণা হিসেবে কাজ করেছে, ‘ইতিহাসের পিছুটান এবং সীমাবদ্ধতা থেকে এগিয়ে যাও এবং নতুন কিছু সৃষ্টি করো।’

নয়েচ ও মুর দুজনই ফেয়ারচাইল্ড সেমিকন্ডাক্টর নামের একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নয়েচের প্রতি যে আচরণ করা হচ্ছিল তাতে তিনি বেশ অসন্তুষ্ট ছিলেন। একদিন মুরের কাছে এসে নয়েচ বলেন যে তিনি চাকরি ছেড়ে দিচ্ছেন এবং মুর সত্যি সত্যিই নতুন কিছু করতে আগ্রহী কি না। তাঁরা দুজন একসঙ্গে চাকরি ছেড়ে দিয়ে যে নতুন প্রতিষ্ঠান তৈরি করেন, সেটিই আজকের ইনটেল।

গুগল ওসিআর থেকে উইকিসোর্স

কিছুদিন আগে গুগল ড্রাইভে বাংলা এবং ভারতীয় অন্যান্য ভাষার ওসিআর যুক্ত করা হয়েছে। কোনো ছবি বা পিডিএফ ফাইল গুগল ড্রাইভে আপলোড করা ফাইলের লেখাগুলো আলাদা করা যায়। 

বাংলা উইকিসোর্সে (https://bn.wikisource.org) মুক্ত লাইসেন্সের অধিনে এমন অনেক বই রয়েছে। স্ক্যান করা এই বইগুলো এতোদিন পর্যন্ত দেখে দেখে টাইপ করতে হতো। এই কাজটি কিছুটা সহজ হয়ে যাবে যদি এটি সয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে করা যায়। গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে এই কাজটি সহজেই করা যায়, কিন্তু বইএর প্রতিটি পাতা আলাদা করে আপলোড করা এবং পরবর্তীতে সেটি উইকিসোর্সে আপলোড করার জন্য বেশ অনেকটা সময় প্রয়োজন। বেশি সংখ্যক পাতা রয়েছে এমন বইগুলোর জন্য কাজটি প্রায় অসম্ভব বলে মনে হতে পারে। 

OCR4wikisource (https://github.com/tshrinivasan/OCR4wikisource) নামের একটি স্ক্রিপ্ট ব্যবহার করে এই সম্পূর্ণ কাজটি সংয়ক্রিয়ভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব । নিচে উল্লেখিত পদ্ধতি অনুসরণ করে এই স্ক্রিপ্টটি সক্রিয় করা এবং বই আপলোডের কাজে ব্যবহার করা যাবে। এই টুলটি কেবলমা্ত্র লিনাক্স থেকে ব্যবহার করা যাবে। উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের উপযোগী সংস্করণটি এখনো প্রকাশিত হয়নি।

Image
Image
© 2018 JoomShaper, All Right Reserved